» জোটের প্রার্থীতা নিয়ে সিলেট ৫ আসনে ক্ষোভ বিভক্তি!

প্রকাশিত: ১৫. নভেম্বর. ২০১৮ | বৃহস্পতিবার

জোটের প্রার্থীতা নিয়ে সিলেট ৫ আসনে ক্ষোভ বিভক্তি!

সিলেট সংবাদদাতা: সিলেট ৫ (জকিগঞ্জ-কানাইঘাট) আসনে জোটের প্রার্থীতার নিশ্চয়তা নিয়ে রকমারি মন্তব্য। প্রার্থীতা নিয়ে জোটের শরীক দলগুলোর মধ্যে একপ্রকার উত্তেজনা বিরজমান। জোটের প্রধান বিএনপির একাংশ কানাইঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান আশিক চৌধুরীকে মনোনিত করার পক্ষে। বৃহদাংশের দাবি চট্রগ্রাম ভার্সিটির সাবেক ভিপি মামুনুর রশীদ চাকসুকে মনোনীত করা হোক।
উভয় উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে চাকসু মামুনের সমর্থকরা তার পক্ষে ক্ষীণ প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। জোটের প্রার্থীতার নিশ্চয়তা নিয়ে বিএনপি স্পষ্ট দুভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। এদিকে এ আসন থেকে জোটের প্রার্থীতা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন সাবেক সাংসদ, জামায়েতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্ম পরিষদের সদস্য অধ্যক্য ফরীদ উদ্দীন চৌধুরী। নিবন্ধনহারা জামায়েতের এই নেতার পক্ষে মাঠে তৎপরতা দেখা না গেলেও কৌশলে মনোনয়ন নিশ্চিত করতে দৌড়ঝাঁপ অব্যাহত রেখেছেন জামায়েতের এই নেতা।
এদিকে জোটের মনোনয়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে দীর্ঘ ১৮বছর থেকে মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি শায়খুল হাদীস আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক। সারা দেশে ২০দলীয় জোটের পক্ষে মিটিং মিছিল হলেও সিলেটের এই আসনে জামায়েত ব্যতীত ১৯দলীয় মিটিং মিছিল ও কেন্দ্রীয় কর্মসূচী পালিত হয়।
আসনটিতে বিএনপি এবং জমিয়ত কাঁধে কাঁধ রেখে দীর্ঘদিন থেকে মাঠে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। বিএনপি ও জমিয়তের সম্মেলিত দাবি, এই আসনে বিএনপি অথবা জমিয়তের প্রার্থীকে জোটের প্রার্থী মনোনীত করা হোক।
জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম কানাইঘাট উপজেলার সাধারণ সম্পাদক মুফতি ইবাদুর রহমান বলেন, আমরা বিএনপির সাথে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে আসছি দীর্ঘদিন থেকে। এই আসনে জোটের শরীক দলগুলোর মধ্যে শক্তিশালী অবস্থানে আছে আমাদের সংগঠন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম। যার প্রমাণ বিগত উপজেলা ও ইউনিয়ন নির্বাচন।
মুফতি ইবাদুর রহমান আরো বলেন, এই আসন আলেম উলামা ও ধর্মপরায়ণ মানুষের অধ্যুষিত আসন। এই আসন থেকে ব্রিটিশ আমল,পাকিস্তান ও বাংলাদেশ আমলে আলেমরাই বিজয় হয়েছিলেন। আমাদের প্রাণের দাবি, আসনটি যদি আমাদের জন্য ছাড় দেয়া হয় তবে কাঙ্কিত সফলতা অর্জন করা সম্ভব হবে।
এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিএনপি নেতা ক্ষোভ প্রকাশ করত বলেন, যদি এই আসন জমিয়ত অথবা বিএনপিকে না দেয়া হয় তবে আমরা স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করতে প্রস্তুত।

Share Button

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৬২০ বার

Share Button

সর্বশেষ খবর

Flag Counter